মাজারের পুকুরে ভেসে উঠলো মানুষের মাথা

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে এবার মানুষের একটি দেহহীন মাথা উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার (৩ জুলাই) সকাল ১০টায় উপজেলার ঐতিহ্যবাহী দাউদনগর বন্দেগী শাহ সৈয়দ দাউদ (রহঃ) ও বন্দেগী সৈয়দ মহিব উল্লা (রহঃ) মাজারের গজার মাছের পুকুরে পুরুষের দেহবিহীন একটি মাথা পানিতে ভেসে ওঠে।স্থানীয় লোকজন খবর দিলে শায়েস্তাগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেহবিহীন মাথাটি উদ্ধার করে। মাথাটি দেখার জন্য

এলাকার শত শত মানুষ পুকুরপাড়ে ভিড় জমায়।আরও জানুনশায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অজয় চন্দ্র দেব বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মাজারের পুকুর থেকে দেহবিহীন মাথা উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার (২ জুলাই) মাথাবিহীন একটি মরদেহ উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর থানা পুলিশ। ধারণা করছি এটি ওই মরদেহের মাথা। আমরা তদন্ত করছি।

আরো পড়ুন> রাজধানীর কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে পঞ্চগড়গামী একতা এক্সপ্রেস একটি বগি রেখেই স্টেশন ছেড়েছে। সোমবার (৪ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ট্রেনটি স্টেশন ছাড়ে। ট্রেনটি ছাড়ার সঠিক সময় ছিল সকাল ১০টা দশ মিনিটে।জানা গেছে, একতা এক্সপ্রেসের ‘ট’ নম্বর বগির জন্য ১০৫ জন যাত্রী টিকিট কেটেছিলেন। ‌তাদের অধিকাংশ যাত্রী এ ঘটনায় ট্রেনটি মিস করেছেন। ট্রেনটির ‘ট’ নম্বর বগিতে

See also  ‘বাংলাদেশে একশ্রেণির মানুষের কাছে প্রচুর টাকা’

আগে থেকেই ত্রুটি ছিল তাই সেটিকে বাতিল করা হয় এবং মূল ট্রেনের শেষে রাখা হয়। ফলে অনেক যাত্রী বগি বাতিলের তথ্য না জেনেই সেখানে উঠে পড়ে।কর্তৃপক্ষ বলছে, বগি বাতিলের বিষয়টি সকাল ৯টা সময় সবাইকে অবগত করা হয়েছে। তবে আগে যারা বিষয়টি জেনেছেন, তারা অনেকে অন্য বগিতে উঠেছেন। একতা এক্সপ্রেস (৭০৫) ট্রেনটি রাজধানী কমলাপুর স্টেশন থেকে পঞ্চগড়ের বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল

ইসলাম রেলওয়ে স্টেশন (পঞ্চগড় রেলওয়ে স্টেশন) পর্যন্ত চলাচল করে।একতা এক্সপ্রেসের ‘ট’ বগির যাত্রী অমেলা বেগম ঢাকা পোস্টকে বলেন, আমাদের স্টেশনে পৌঁছাতে কিছুটা দেরি হয়। যার ফলে আমরা এসে দেখি ৭ নম্বর প্ল্যাটফর্মে ট্রেনটি দাঁড়িয়ে আছে। পরে আমাদের আসন নিশ্চিত করে ট্রেনে বসি। হঠাৎ জানতে পারি আমাদের বগি রেখেই একতা এক্সপ্রেস ট্রেন চলে গেছে। এ সময় বগিতে ১০০ থেকে ১৫০